নিশ্চিত মৃত্যু থেকে বাঁচলো ২৪১ যাত্রী ও ১০ ক্রু

6

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : বিমানটি যুক্তরাষ্ট্রের ডেনভার থেকে হাওয়াই যাচ্ছিলো। গতকাল শনিবারের হঠাৎ বিস্ফোরণে বিমানটির দুই ইঞ্জিনের একটি থেকে আগুন আর ধোঁয়া বের হতে শুরু করেছে। কিছুক্ষণ পর নিচে থাকা বাড়িঘরের ওপরে খসে পড়তে থাকে বিমানটির ইঞ্জিনের বিভিন্ন যন্ত্রাংশ। শেষ পর্যন্ত বিমানটি কোনো রকমে জরুরি অবতরণ করে।

বলা যায় ‘নিশ্চিত মৃত্যু’র মুখ থেকে রক্ষা পেয়েছে দুই শতাধিক যাত্রী। ইউনাইটেড এয়ারলাইনসের বিমানটিতে এ সময় আরোহী ছিলেন মোট ২৪১ জন। এর মধ্যে ২৩১ জন যাত্রী ও ১০ ক্রু। বিমানটির ভেতরের ক্যামেরায় ধারণ করা একটি ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, আকাশে উড্ডয়নরত বোয়িং ৭৭৭-২০০–এর ডান পাখায় আগুন জ্বলছে। বের হচ্ছে সাদা ধোঁয়া।

ইউনাইটেড এয়ারলাইনস এক বিবৃতিতে জানায়, ডেনভার থেকে ফ্লাইট ইউএ ৩২৮ হনুলুলু যাচ্ছিল। উড্ডয়নের অল্প পর এটির একটি ইঞ্জিন অকেজো হয়ে যায়। তবে ফ্লাইটটি নিরাপদে ডেনভার ফিরে জরুরি অবতরণ করেছে। নিরাপদে অবতরণের পর বিমানটির অধিকাংশ যাত্রীকে নতুন ফ্লাইটে গন্তব্যে পাঠানো হয়েছে। যারা নতুন ফ্লাইটে করে গন্তব্যে যেতে চাননি, তাদের আবাসিক হোটেলে থাকার বন্দোবস্ত করা হয়েছে।

বিমানের যাত্রীদের একজন ডেভিড ডেলুসিয়া দ্য ডেনভার পোস্ট পত্রিকাকে বলেন, ‘সত্যি বলছি, আমি ভেবেছিলাম আমরা কিছুক্ষণের মধ্যে মরতে চলেছি। কেননা বিস্ফোরণের পর বিমানটি ডান কাত হয়ে নিচের দিকে পড়তে থাকে। আমি স্ত্রীর হাত আঁকড়ে ধরি। বলি, এই আমাদের শেষ দেখা।’