ফাইজারের টিকা নিয়েও ২৪০ ইসরায়েলি আক্রান্ত

23

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ইসরায়েলে মার্কিন ওষুধ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান ফাইজার ও বায়োএনটেকের তৈরি ভ্যাকসিন গ্রহণের পরও প্রায় ২৪০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে বলে জানা গেছে। টাইমস অব ইসরায়েল, রাশিয়া টুডে ও আরট’র প্রতিবেদনে এই তথ্য পাওয়া গেছে।

ইসরায়েলে এখন পর্যন্ত ফাইজার-বায়োএনটেকের করোনা টিকা নেয়া ১০ লাখ মানুষ। এদরে মধ্যে টিকা নেয়ার কয়েকদিনের মাথায় ২৪০ জনের দেহে ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। ফাইজারের তৈরি এ ভ্যাকসিনের দুইটি ডোজ নিতে হয়।

সংশ্লিষ্ট গবেষকদের দাবি, প্রথম ডোজ দেওয়ার আট থেকে দশদিন পর কোভিড-১৯ এর বিরুদ্ধে ৫০ শতাংশ ইমিউনিটি তৈরি হয়। প্রথম ডোজের ২১ দিন পর দিতে হয় দ্বিতীয় ডোজ। আর এর মাত্র এক সপ্তাহের মাথায় ৯৫ শতাংশ ইমিউনিটি অর্জিত হয়। অর্থাৎ ভ্যাকসিন গ্রহণের পরও আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা ৫ শতাংশ।

ইসরায়েলি সংবাদমাধ্যম চ্যানেল থার্টিন নিউজের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ফাইজারের ভ্যাকসিন নেওয়ার পরও এ পর্যন্ত ২৪০ জন করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন। এ ধরনের সংক্রমণ ঠেকাতে প্রথম ডোজ নেওয়ার পর ওই মাসে কোভিড-১৯ বিরোধী নির্দেশনাগুলো মেনে চলার জন্য ইসরায়েলিদের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে ওই প্রতিবেদনে।

ইসরায়েলের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ভ্যাকসিন নেওয়ার পর হাজারে একজনের মধ্যে হালকা পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে। এর মধ্যে রয়েছে দুর্বলতা, মাথা ঘোরা জ্বর আসা, ইনজেকশন দেওয়ার স্থানে ব্যথা, ফোলাভাব এবং লাল হয়ে যাওয়া।