কঙ্গনার বাড়ির সামনে গুলিবর্ষণ

6

বিনোদন ডেস্ক : বলিউডের প্রতিবাদি অভিনেত্রীদের একজন কঙ্গনা রানাউত। বিভিন্ন ইস্যুতে সরব থাকতে ভালোবাসেন তিনি। অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর থেকেই আলোচনায় নায়িকা। নেপোটিজম, স্বজনপোষণসহ বিভিন্ন অভিযোগে বলিউড গরম করে রেখেছেন এই তারকা। এরই মাঝে নতুন বিড়ম্বনা। এবার গভীর রাতে অভিনেত্রীর মানালির বাড়ির সামনে গুলিবর্ষণের ঘটনা ঘটেছে।

এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়েরের পর তার বাড়ির নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে। সুশান্তের মৃত্যুতে সবচেয়ে বেশি সুর চড়িয়েছেন কঙ্গনা। তবে তার জোরালো প্রতিবাদকে বলিউডের একটা বড় অংশ সমর্থন করেনি। এই পরিস্থিতিতে নিজের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধারের সম্ভাবনার কথা বলেছেন অভিনেত্রী। তবে তা যে আত্মহত্যা হবে না, সেকথাও জানিয়েছেন তিনি।

বাড়ির সামনে গুলিবর্ষণের ঘটনার বিষয়ে কঙ্গনা বলেন, শুক্রবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে আমি শোবার ঘরে ছিলাম। তিনতলা বাড়ির বাইরে আচমকা একটা শব্দ পাই। প্রথমে মনে করি বাজি ফাটছে। কিন্তু মানালিতে এখন কোনও পর্যটক নেই। তাই বাজি ফাটার কথাও নয়। তারপর আরেকটা শব্দ পাই। তখনই বুঝতে পারি এটা গুলির শব্দ। তড়িঘড়ি নিরাপত্তারক্ষীর কাছে যাই।

তিনি জানান- কোনও শিশু হয়তো এ কাজ করেছে। কিন্তু আমরা পাঁচজন বুঝতে পারি এটা গুলির শব্দ। নিরাপত্তারক্ষী হয়তো কোনও কারণে তা বুঝতে পারেননি। জানা গেছে, নিরাপত্তার স্বার্থে কুল্লু থানায় অভিযোগ জানান ‘কুইন’ খ্যাত এই অভিনেত্রী। পরে ডিএসপি পদমর্যাদা এক কর্মকর্তার নেতৃত্বে বিশাল পুলিশবাহিনী তার বাড়িতে যায়।

তবে তদন্তকারীদের নজরে সন্দেহজনক কিছুই আসেনি। শুক্রবার রাতে এলাকায় আসা বহিরাগত গাড়ির তথ্য খতিয়ে দেখছে পুলিশ। জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেত্রীর বাড়িতে নিরাপত্তার স্বার্থে সব সময়ের জন্য পুলিশকর্মী নিয়োগ করা হয়েছে।

হিমাচল প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীর দপ্তরেও পাঠানো হয়েছে রিপোর্ট। কে বা কারা অভিনেত্রীর বাড়ি লক্ষ্য করে গুলি চালিয়েছে, তা নিয়ে তৈরি হয়েছে ধোঁয়াশা। তবে কঙ্গনার ধারণা, সুশান্তের মৃত্যুর পর সরব হওয়ার জেরে তাকে কেউ ভয় দেখানোর জন্য এ কাজ করেছে।