দেশে ২৪ ঘণ্টায় নতুন আক্রান্ত ১২৫১, মৃত্যু ২১

নিউজ ডেস্ক : দেশে চব্বিশ ঘণ্টায় রোনাভাইরাসে নতুন করে ২১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যু হয়েছে ৩৭০ জনের। একই সময়ে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১২৫১ জন। এর মধ্যে একদিনে আরও ৪০৮ জন নিয়ে মোট আরোগ্যের সংখ্যা ৪ হাজার ৯৯৩ জন।

মঙ্গলবার দুপুরে স্বাস্থ্য বুলেটিনে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা এ তথ্য জানান। এসময় করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকি এড়াতে সবাইকে স্বাস্থ্য অধিদফতর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরামর্শ-নির্দেশনা মেনে চলার অনুরোধ জানান তিনি।

তিনি জানান, নতুন মৃত ২১ জনের মধ্যে বয়স বিশ্লেষণে ১১-২০ বছরের মধ্যে একজন, ২১-৩০ বছরের মধ্যে দুজন, ৩১-৪০ বছরের মধ্যে দুজন, ৪১-৫০ বছরের মধ্যে পাঁচজন, ৫১-৬০ বছরের মধ্যে পাঁচজন, ৬১-৭০ বছরের মধ্যে চারজন, ৭১-৮০ বছরের মধ্যে দুজন।

তাদের মধ্যে ঢাকা বিভাগেরও ১৪ জন (ঢাকা শহরের সাতজন), চট্টগ্রাম বিভাগের চারজন, ময়মনসিংহ বিভাগের একজন, খুলনা বিভাগের একজন, বরিশাল বিভাগের একজন।হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেছেন ১৩জন, বাসায় তিনজন এবং হাসপাতালে মৃত অবস্থায় এসেছেন পাঁচজন।

বুলেটিনে বলা হয় ২৪ ঘণ্টায় ৪২টি ল্যাব থেকে কভিড-১৯ এর ৯ হাজার ৯১টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়; পরীক্ষা করা হয় ৮ হাজার ৪৪৯টি নমুনা। একদিনে আইসোলেশনে আনা হয়েছে ৩২৬ জনকে; ছাড় পেয়েছেন ৯৩ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ৩ হাজার ৬১৬ জন।

এই সময়ে কোয়ারেন্টাইনে আনা হয়েছে ৩ হাজার ৫৩১ জনকে, ছাড় পেয়েছেন ২ হাজার ৪০২ জন জন। বর্তমানে কোয়ারেন্টাইনে আছেন ৫১ হাজার ২১৭ জন। দেশে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত (কোভিড-১৯) প্রথম রোগী শনাক্ত হয় গত ৮ মার্চ। তার ১০ দিন পর ১৮ মার্চ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়।